স্টাইপেন্ডিয়াম হাঙ্গেরিকাম স্কলারশিপ (২০২১-২২)

প্রথমেই হাঙ্গেরি সম্পর্কে একটু বলে নেই। হাঙ্গেরি একটি মধ্যে ইউরোপীয় ছোট দেশ। এর প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে স্লোভাকিয়া, ইউক্রেন, রোমানিয়া, অস্ট্রিয়া। দেশটির আয়তন ৯৩,০৩০ স্কয়ার কিলোমিটার।
জনসংখ্যা: দেশটির জনসংখ্যা ৯,৬৬০,৩৫১ জন। ২০২০ সালের জনসংখ্যা বৃদ্ধির হাড় ২.২% এবং ২০৫০ সালে তা গিয়ে দাঁড়াবে ১% এ।

স্কলারশিপ:
গত দুই বছর হলো হাঙ্গেরি সরকার বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের জন্য এই স্কলারশিপ অফার করে আসছে। তবে এই স্কলারশিপ আমাদের দেশে খুব একটা জনপ্রিয় নয়। এই স্কলারশিপ দুই প্রকারের। একটা হলো ফুল স্কলারশিপ, অপরটি পারশিয়াল স্কলারশিপ। ফুল স্কলারশিপ টি সচিবালয়ে মাধ্যমে আবেদন করতে হয়। তারা এখনো সার্কুলার দেয়নি এই বিষয়ে। তাই আরো কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে। তবে পারশিয়াল স্কলারশিপের জন্য এখনই আবেদন করতে পারবেন। তারজন্য সচিবালয়ে সার্কুলারের অপেক্ষা করতে হবে না। সর্বোচ্চ দুটো ভার্সিটিতে আবেদন করতে পারবেন। নিচে লিঙ্ক দেওয়া আছে।

স্টাডি লেভেল: ব্যাচেলর, মাস্টার্স এবং পিএইচডি
স্টাডি মিডিয়াম: আপনি ইংরেজি বা হাঙ্গেরিয়ান ভাষায় পড়ালেখা করতে পারবেন।

কাগজপত্র যা যা লাগবে:
১। পাসপোর্ট
২। একাডেমিক সার্টিফিকেট এবং নম্বর পএ
৩। জন্ম নিবন্ধন অথবা এনআইডি
৪। রিকমেন্ডেশন লেটার (২ টি)
৫। মোটিভেশান লেটার
৬। সিভি
৭। মেডিকেল সার্টিফিকেট
৮। এক্সট্রা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটিস সার্টিফিকেট (যদি থাকে)
৯। আইইএলটিএস স্কোর (ভার্সিটির রিকোয়ার্মেন্ট অনুযায়ী)

স্কলারশিপের সুযোগ সুবিধা:
যদি ফুল স্কলারশিপ পান তবে আপনার টিউশন, ডর্ম ফি দিতে হবে না। সেইসাথে হেল্থ ইনসুরেন্সের খরচও এই স্কলারশিপের আওতায়। ব্যাচেলর এবং মাস্টার্সের স্টুডেন্টরা প্রতি মাসে পাবে ১৩০ ইউরো। পিএইচডি শিক্ষার্থীরা প্রতি মাসে পাবেন ৪৫০-৫৫০ ইউরো। ব্যাচেলর এবং মাস্টার্স স্টুডেন্টদের এই টাকা দিয়ে আপনার চলা হয়তো একটু কষ্ট হয়ে যাবে। তবে পার্ট-টাইম জব করে ভালোভাবে চলতে পারবেন।

পার্ট-টাইম জব:
হাঙ্গেরিতে আপনি সপ্তাহে ২০ ঘন্টা কাজ করতে পারবেন। যা দিয়ে খুব সহজেই নিজের এক্সটা খরচ কভার করতে পারবেন। গড়ে একজন বিদেশি শিক্ষার্থী ঘন্টায় ৮০০ HUF এবং সর্বোচ্চ ২০০০ HUF (rare) আয় করতে পারে। বড় শহর গুলোতে জব পাওয়া একটু সহজ।

স্কলারশিপের আবেদনের লিঙ্ক:
হাঙ্গেরী: Stipendium hungaricum

বাংলাদেশ সচিবালয়:
অফিসিয়াল পেজঃ Hungaricum
১৫ জানুয়ারি থেকে ২৯ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। (সম্ভবত)

টপ ভার্সিটি:

Semmelweis University (400-500th)
Eötvös Loránd University(601-800th)
University of Pécs(601-800th)
University of Debrecen(801-1000th)

স্কলারশিপটি অন্য অনেক স্কলারশিপের মতো প্রতিযোগিতা পূর্ণ নয়। তাই মোটামুটি রেজাল্ট, আইইএলটিএস স্কোর ভালো থাকলে চেষ্টা করে দেখতে পারেন।
লেখাপড়া শেষে অন্য সব ইউরোপীয় দেশের মতো হাঙ্গেরি ও আপনাকে জব খোঁজার ভিসা দিবে। যদি সেই সময়ের মধ্যে জব ম্যানেজ করতে পারেন তবে থেকে যেতে পারবেন। তবে কাজটা খুব একটা সহজ নয়।

Mohaiminul Islam
Research Assistant (RA) at School of Intelligent Technology and Engineering
Chongqing, China

No ratings yet.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *