Study Abroad

প্রতি বছর আমাদের দেশ থেকে অসংখ্য শিক্ষার্থী উচ্চ শিক্ষার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পড়তে যায়। আগের থেকে এই সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বেড়ে চলেছে। এখন যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত হওয়ায় এবং অনলাইনে সহজে বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর তথ্য সহজে পাওয়া যায় বলে এই সংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলেছে।

বাইরে পড়তে যাওয়ার জন্য সব থেকে বোরো বিষয় হচ্ছে কোন দেশে বা কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে যাবে সে সম্পর্কে খুব ভালো করে জানা। অর্থবহুল এবং সঠিক তথ্য পেলে খুব সহজেই বিদেশ থেকে উচ্চ শিক্ষা লাভ করা যায়।

সুতরাং বাইরে পড়তে হলে বিশ্ববিদ্যালয় নির্বাচন, টিউশন ফি, কিভাবে আবেদন করতে হবে, শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অন্নান্য রিকুইরেমেন্টস, ভাষাগত যোগ্যতা, থাকা খাওয়ার খরজ, ভিসা সহ আরো অনেক বিষয় সম্পর্কে জানতে হয়। আর এ সকল তথ্য ভিবিন্ন ভাবে সংগ্রহ করতে হয়। আমার বিভিন্ন দেশের উচ্চ শিক্ষার জন্য যে ধরণেরতথ্য ও উপাত্ত দরকার সে বিষয়ে ধারণা এবং রেফারেন্স গুলো দেয়ার চেষ্টা করবো। আশা করি আপনাদের কাজে আসবে।

যেহেতু আমারা উন্নয়নশীল দেশের নাগরিক এবং আমাদের অনেকেরই বাইরে পড়াশুনার প্রচুর আগ্রহ আছে কিন্তু পর্যাপ্ত টাকা পয়সা নেই সো সে জন্য বৃত্তি বা টিউশন ফি ছাড়া যে সকল দেশে পড়া সম্ভব সে সকল দেশের প্রতি আগ্রহ বেশি। সব থেকে বোরো বিষয় হচ্ছে সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়া।

আপনি কোন বিষয় নিয়ে পড়তে চাচ্ছেন এবং সেই বিষয় কোন দেশে বা কোন বিশ্ব বিদ্যালয়ে ভালো এবং সে দেশে আপনি বৃত্তি /স্কলারশিপ পাবেন কিনা বা সব মিলিয়ে আপনার কি ধরণের খরজ হতে পারে সে সকল বিষয় মাথায় রাখুন। এই জন্য আপনি পুরো বিষয়টাকে ছোট ছোট অংশে ভাগ করুন। প্রথমে কোন বিষয়ে পড়বেন তা নির্বাচন করুন, তারপর সে বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে কিছু বিশ্ববিদ্যালয় শর্ট লিস্ট করুন, তারপর সেগুলো সম্পকে ভালো করে সব ধরণের তথ্য যাচাই করুন, এরপর আপনার যোগ্যতা অনুযায়ী যে বিশ্ববিদ্যালয় এর সাথে আপনার রিকোয়ার্মেন্টস মিলে যায় সে বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করুন।

আপনি চাইলে একাধিক বিশ্ব বিদ্যালয়ে আবেদন করতে পারবেন কিন্তু তার আগে খুব ভালো করে তারা কি চাইতেছে সেই রিকুইরেমেন্টস গুলো সম্পর্কে ভালো করে পড়ুন। মনে রাখেব বাইরে পড়তে হলে প্রচুর ধর্য্য ও এক কাজ করার মানসিকতা থাকতে হবে। আমাদের দেশ থেকে জার্মানি, চায়না, কানাডা, আমেরিকা, ইংল্যান্ড, এস্তোনিয়া, অস্ট্রেলিয়া, জাপান সহ বিশ্বের আরো অনেক দেশে পড়াশুনার প্রচুর চাহিদা আছে। আমরা নিচে সেই সকল দেশে কিভাবে উচ্চ শিক্ষা নেয়া যাবে সে বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য ও রেফারেন্স দিবো।