স্ট্যাক ওভারফ্লো (Stack overflow) প্রশ্ন উত্তর ওয়েব সাইট

স্ট্যাক ওভারফ্লো (Stack overflow)

স্ট্যাক ওভারফ্লো (Stack overflow) পৃথিবীর অন্যতম জনপ্রিয় একটি প্রশ্ন উত্তর (Q&A Question & Answer) ওয়েবসাইট । ২০০৮ সালে এই বিশাল অনলাইন কমিউনিটি তাদের যাত্রা শুরু করে । মূলত প্রোগ্রামার ও ডেভ্লপারদের জ্ঞান অর্জন এবং শেয়ার এর লক্ষে এই সাইটটি প্রতিষ্ঠিত হয় । আপনারা যারা প্রোগ্রামিং করেন এবং প্রোগ্রামিং করার সময় নানান ধরণের প্রব্লেমে পরেন হয়ত তারা এই সাইটির সাথে আগে থেকেই পরিচিত । যে কোন প্রব্লেমে পরলে গুগল সার্চে এখন সব সময়ি স্ট্যাক ওভারফ্লো সবার আগে চলে আসে । প্রতি মাসে ৫০ মিলিয়ন এর বেশী প্রোগ্রামার স্ট্যাক ওভারফ্লো ভিজিট করেন তাদের স্কিল ডেভ্লপ করার জন্য এবং নানান প্রোগ্রামিং সমস্যার সমাধানের জন্য । স্ট্যাক ওভারফ্লো তে প্রশ্ন করা এবং উত্তর দেয়া ছারাও এখান থেকে বিভিন্ন ধরণের জব খোঁজা যায় ।
আসুন এবার স্ট্যাক ওভারফ্লো সম্পর্কে আরেকটু বিস্তারিত জানা যাক । Joel Spolsky এবং Jeff Atwood স্ট্যাক ওভারফ্লো প্রতিষ্ঠা করেন । মূলত ( Q&A Question & Answer ) প্রশ্ন এবং উত্তর এর ধারনা থেকে তারা স্ট্যাক ওভারফ্লো প্রতিষ্ঠা করার চিন্তা করেন । এখন এই সাইটটি এতই জনপ্রিয় যে প্রায় ৫১,০০০ + ডেভ্লপার এর সাথে যুক্ত আছে এবং প্রতি মাসে ৫০ মিলিয়ন ভিজিটর এই সাইট ভিজিট করেন এছাড়া ১৪, ০০০, ০০০+ বেশী প্রশ্ন করা হয়েছে এবং ১৯, ০০০,০০০+ এর বেশী উত্তর এসেছে !! তো এখান থেকে খুব সহজে অনুমান করা যাচ্ছে যে এটি কত জনপ্রিয় এবং হেল্পফুল একটি ওয়েব সাইট । পৃথিবীর অনেক বিখ্যাত প্রগ্রামার এই সাইটে আছে এবং অসংখ্য প্রোগ্রামার তাদের অনেক জটিল সমস্যার সমাধান পেয়েছেন ।

স্ট্যাক ওভারফ্লো তে কি করা যায় এবং কেন এর সাথে যুক্ত হবেন?
স্ট্যাক ওভারফ্লো তে কেন জয়েন করবেন তা একটু পরেই বুঝতে পারবেন, আসুন আগে জেনে নেই স্ট্যাক ওভারফ্লো তে কি কি করা যায় । Stack overflow তে আপনি আপনার প্রোগ্রামিং বা অন্যান্য সমস্যা নিয়ে প্রশ্ন করতে পারবেন এবং আপনি নিজেও অন্য কার প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবেন । যারা আপনারা কোডিং করেন বা কোডিং করতে পছন্দ করেন তারা একটা বিষয় হয়ত লক্ষ করেছেন যে আপানারা যখন কোন সমস্যায় পরেন এবং গুগলে এটি সার্চ করেন তখন সম্ভব্য উত্তরের জন্য গুগল আপানাকে স্ট্যাক ওভারফ্লো সাজেস্ট করে । এর কারণ হল আপনি হয়ত নতুন কোডিং শুরু করেছেন বাট কেউ না কেউ এই সমস্যায় এর আগে পরেছিল এবং একই এররর নিয়ে সে স্ট্যাক ওভারফ্লো পোস্ট করেছিল । সুতারাং স্ট্যাক ওভারফ্লো থেকে আপনার সমস্যার সমাধান পাওয়ার সম্ভবনা অনেক বেশী । আর সব থেকে মজার বিষয় হল আপনি যদি আপনার একই কোন সমস্যা খুঁজে নাও পান তাহলে তো নিজেই সেই প্রশ্ন করতে পারবেন এবং আপনার কোড পোস্ট করতে পারবেন । এখানে আপনি আপনার একই প্রবলেম এর জন্য অনেক ধরণের উত্তর খুঁজে পাবেন যা আপনার স্কিল ডেভ্লপ করার জন্য অনেক সাহায্য করবে । তবে স্ট্যাক ওভারফ্লো তে প্রশ্ন করার কিছু নিয়ম কানুন আছে যা মেনেই আপনাকে প্রশ্ন করতে হবে । আপনারা এই লিঙ্ক থেকে প্রশ্ন করার নিয়ম জেনে নিতে পারবেন । প্রশ্ন করার আগে অবশ্যই সেটি ভাল করে খুঁজে দেখবেন যে আগে কেউ একই প্রশ্ন করেছে কি না ? আপনার প্রশ্ন অবশ্যই মানসম্মত হতে হবে এবং কি সমস্যা সেটা ক্লিয়ার করে বিস্তারিত লিখতে হবে কারণ অন্যরা আপনার প্রশ্নে ভোট দিতে পাড়বে ! মূলত ২ ধরণের ভোট দেয়ার পদ্ধতি আছে, ১ আপ ভোট এবং ২ ডাউন ভোট । আবার এসব ভোটে পয়েন্ট ও আছে,আপ ভোট পেলে মানে আপনার প্রশ্ন যদি মানসম্মত হয় তাহলে আপনি ৫ পয়েন্ট পাবেন এবং যদি ডাউন ভোট পেয়ে থাকেন তাহলে -২ পয়েন্ট আপনার থেকে কেটে নেয়া হবে। সব থেকে মজার বিষয় হল আপনি প্রশ্ন করার পর যদি একাধিক উত্তর পেয়ে থাকেন এবং সেটি যদি আপনার সমস্যার সমাধান করে থাকে তাহলে আপনি সেই উত্তর গুল থেকে একটি সঠিক উত্তর হিসাবে টিক মার্ক করে রাখতে পাড়বেন, এতে অন্য কেউ যদি একই সমস্যায় পরে তাহলে সে সহজে বুঝতে পাড়বে যে কোন উত্তরটি সঠিক । আপনি যদি কার প্রশ্নের সঠিক উত্তর দেন তাহলে ১৫ পয়েন্ট পাবেন বা আপানার প্রশ্নের করা উত্তর গুলো থেকে একটি সঠিক উত্তর বেছে নেন তাহলে আপনি ২ পয়েন্ট এবং যার উত্তরটি সঠিক হিসাবে নিয়েছে তিনি ১৫ পয়েন্ট পাবেন ! এভাবে যখন আপনি ৫০ পয়েন্ট অর্জন করেন তাহলে আপনি অন্যের প্রশ্নে কমেন্ট করতে পাড়বেন ! সুতারাং আপনাকে আপনার প্রশ্ন সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে কারণ আপনি যদি একই প্রশ্ন করেন যেটা অন্য কেউ করেছে কিংবা আপনার প্রশ্ন যদি মানসম্মত না হয় তাহলে আপনি ডাউন ভোট পাবেন এনং আপনার পয়েন্ট কাঁটা যাবে এভাবে চলতে থাকলে আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে তারা প্রশ্ন করা বন্ধ করেও দিতে পারে ।

এবার আসি স্ট্যাক ওভারফ্লো (Stack overflow) তে কেন জয়েন করবেন ?
যারা নতুন প্রোগ্রামিং শুরু করেন বা নতুন কোন ল্যাঙ্গুয়েজ নিয়ে কোডিং করেন শুরুতে তারা অনেক ধরণের সমস্যায় পরেন, আর নিজের সমস্যা গুলো নিজের পক্ষে আবিষ্কার করা খুবি কঠিন হয়ে যায় । একটা উক্তি আছে নিজের ভুল চোখে পরে না !! আর কোডিং করার সময় প্রব্লেমে পড়লে এবং সেই প্রব্লেমের সমাধান করতে না পারলে আস্তে আস্তে কোডিং করার প্রতি মনোযোগ নষ্ট হয়ে যায়। এখন আপনি যদি এমন সমস্যায় পরেন এবং তাতখনিক কেউ আপনাকে আপনার সমস্যা ধরিয়ে দেয় তাহলে অবশ্যই আপনার মধ্যে একটা ভাল লাগা কাজ করবে ! আপনার এই সমস্যা গুলোর সমাধান করার জন্য কিংবা আপনার নিজের স্কিল ডেভ্লপ করার জন্য স্ট্যাক ওভারফ্লো তে জয়েন করা খুবি জরুরী । এখান থেকে আপনি একই বিষয়ের অনেক গুলো সমাধান পাবেন আর সব থেকে বড় কথা হল যখন আপনি একই প্রব্লেমের অনেক কার্যকর সমাধান পাবেন তখন আপনি বুঝতে পাড়বেন যে কে কিভাবে সমাধান দিচ্ছে বা কে কিভাবে সমস্যাটা নিয়ে চিন্তা করতেছে । এতে করে বিভিন্ন মানুষের চিন্তার ব্যাপ্তি সম্পর্কে জানতে পাড়বেন এমনকি আপনি হয়ত কোন প্রবলেম এর জন্য ১০ লাইন কোড করতেছেন কেউ হয়ত সেটা ৩-৪ লাইনে করে দিচ্ছে । এতে করে আপনার সমস্যা সমাধানের স্কিল বাড়বে এবং আপনার নিজের চিন্তা শক্তি উন্নত হবে । প্রতি দিন এখানে হাজারো সমস্যা নিয়ে পোস্ট করা হয়, আপনি যখন নিজে উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবেন কিংবা দিতে গিয়ে হয়ত আপনার নিজের থেকেও কোন কার্যকর সমাধান খুঁজে পাবেন যা আপনাকে নতুন করে চিন্তা করার সুযোগ তৈরি করে দিবে । একটা প্রবাদ আছে প্রোগ্রামাররা নিজে যত না কোড করে তার থেকে অনেক বেশী অন্যের কোড পড়ে । সুরারাং স্ট্যাক ওভারফ্লো আপনাকে সেই সুযোগ করে দিচ্ছে যেখান থেকে আপনি নিজের সমস্যা এবং অন্য কার সমস্যার সমাধান করেতে পাড়বেন । এটা আপনার ক্যারিয়ারের জন্য অনেক গুরুক্তপূর্ণ অবদান রাখতে পারে । তাছাড়া অবসর সময়ে অন্যের প্রশ্নের উত্তর দিলে আপনি নিত্য নতুন অনেক প্রব্লেম ও তার সমাধান সম্পর্কে জানতে পাড়বেন ।স্ট্যাক ওভারফ্লো তে প্রশ্ন ও উত্তর ছাড়াও অনেক রিমোট জব অফার থাকে যাদের স্যলারি রেট অনেক বেশী এবং আপনি ঘরে বসে থেকেই সে সব জব করতে পাড়বেন কিংবা আপনার নিজের কোম্পানির জন্য যোগ্য লোক খুঁজে বের করতে পাড়বেন । চাকরি পাওয়ার জন্য আপানর রেপুটেশন  (reputation) পয়েন্ট অনেক কার্যকরী ভুমিকা পালন করবে ।

সুতারাং আপনারা যারা নতুন প্রোগ্রামিং করতেছেন বা যারা অনেক আগে থেকেই করেন সবার জন্য স্ট্যাক ওভারফ্লো অনেক গুরুক্তপূর্ণ একটি ওয়েব সাইট । তবে যারা প্রোগ্রামিং করেন না বা কোড ছাড়া অন্যান্য অনেক কিছু শেখার ইচ্ছা আছে তাদের হতাশ হবার কোন কারণ নেই, ২০১০ সালে তাদের জন্য Stack Exchange তৈরি নেটওয়ার্ক হয় । এখানে ইংলিশ অংক ছাড়াও আরো ১৬০+ ওয়েবসাইট আছে বিভিন্ন বিষয়ের উপর। আশা করি এই ধরণের সাইট গুলো থেকে আপনারা অনেক কিছু শিখতে পারবেন এবং অন্যকেও হেল্প করতে পারবেন। বাংলায় ও এমন একটি ওয়েবসাইট আছে প্রোগ্রামাবাদ নামে যেখান বাংলায় প্রশ্ন ও উত্তর দেয়া যায় । লেখার ভুল ত্রুটি মার্জনীয় ! ধন্যবাদ !

5/5 (8)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *